রাজধানী

পুরনো কারাগারের পুকুর থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধার

প্রকাশ : ১২ জুন ২০১৯

পুরনো কারাগারের পুকুর থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধার

  সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারের পুকুর থেকে এক তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম আজমেরী বেগম (২৬)।  মঙ্গলবার মধ্যরাতে তার লাশ উদ্ধারের প্রায় দেড় ঘণ্টা আগে 'বাঁচাও বাঁচাও' চিৎকার শুনতে পান আশপাশের লোকজন। 

পুলিশ ও স্বজনদের ধারণা, মানসিক ভারসাম্যহীন আজমেরী অসাবধানতায় পুকুরে পড়ে মারা যান।

আজমেরীর ভাই রমজান জানান, পুরান ঢাকার আবুল হাসনাত রোডের বাসায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন তার বোন। অনেক বছর ধরেই মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন তিনি। চিকিৎসাও চলছিল তার। সর্বশেষ মঙ্গলবারও ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। এরপর বাসায় ফিরে রাত ৯টার দিকে বের হন আবার। পরে লোকজনের মাধ্যমে তার লাশ উদ্ধারের খবর পান স্বজনরা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের মসজিদের পাশে ডিআইজি কোয়ার্টার্স সংলগ্ন সংরক্ষিত এলাকায় ওই পুকুর। মসজিদ সবার জন্য উন্মুক্ত হওয়ায় যে কেউ পুকুরে নেমে অজু করতে পারতেন। পুকুরের দক্ষিণ পাশ দিয়ে লোকজন যাতায়াত করে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে একজন ওই পথে হেঁটে যাওয়ার সময় ডুবন্ত আজমেরীকে দেখে ভয় পান। তিনি দৌড়ে গিয়ে অন্যদের ডেকে আনেন। ততক্ষণে মেয়েটি ডুবে গেছে। পরে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এদিকে আজমেরীর ডুবে যাওয়ার সময় নারী কণ্ঠের 'বাঁচাও বাঁচাও' চিৎকার শুনতে পান আশপাশের লোকজন। সেই চিৎকার আজমেরীর ছিল বলেও ধারণা করা হচ্ছে।

চকবাজার থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম জানান, মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হতে ময়নাতদন্ত করা হয়েছে আজমেরীর লাশের। একজোড়া স্যান্ডেল, একটি মোবাইল ফোন ও একটি ভ্যানিটি ব্যাগ জব্দ করা হয়েছে ঘটনাস্থল থেকে। আশপাশের অন্তত ১৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, ছয় ও এক বোনের মধ্যে পঞ্চম ছিলেন আজমেরী। তার বাবার নাম বাহাউদ্দিন।

মন্তব্য


অন্যান্য