রাজধানী

তুরাগে স্কুলছাত্রী ধর্ষণে মামলা, গ্রেফতার হয়নি কেউ

প্রকাশ : ০৯ জানুয়ারি ২০১৯ | আপডেট : ০৯ জানুয়ারি ২০১৯

তুরাগে স্কুলছাত্রী ধর্ষণে মামলা, গ্রেফতার হয়নি কেউ

  সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর তুরাগে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা করেছেন তার বাবা। তবে মামলার একমাত্র আসামি সবুজকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশের পাশাপাশি দোষী ব্যক্তির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের নেতারা।

সোমবার রাতে তুরাগের ভাবনারটেক এলাকা থেকে ওই স্কুলছাত্রীকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায় স্থানীয় যুবক সবুজ। পরে পাশের এলাকায় নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায় সে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। তবে বুধবার বিকেল পর্যন্ত আসামি সবুজকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

পল্লবী থানার ওসি নুরুল মোত্তাকীন সমকালকে বলেন, এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে একজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন। তবে ঘটনার পরপরই আসামি সবুজ পালিয়ে গেছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ ছাড়া ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি রয়েছে।

এদিকে বুধবার ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীকে হাসপাতালে দেখতে যান বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের নেতারা। তারা মেয়েটিকে আইনগত সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দেন। একই দিন এক বিবৃতিতে এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ, তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। 

বিবৃতিতে মহিলা পরিষদের সভাপতি আয়েশা খানম ও সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু বলেন, ধর্ষণের বিরুদ্ধে শূন্য সহিষ্ণুতার নীতি গ্রহণ করতে হবে। নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও প্রশাসনকে কার্যকর ভূমিকা রাখতে হবে। বিবৃতিতে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বানও জানানো হয়।

মন্তব্য


অন্যান্য