রাজধানী

বিএনপি আন্দোলনের নামে নাশকতা করলে শক্ত হাতে দমন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ : ০৮ জানুয়ারি ২০১৯

বিএনপি আন্দোলনের নামে নাশকতা করলে শক্ত হাতে দমন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল- ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সতর্কবার্তা দিয়ে জানিয়েছেন, গণতান্ত্রিকভাবে আন্দোলন-সংগ্রাম করা যে কোনো রাজনৈতিক দলের অধিকার। কর্মসূচি সফল করতে রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি বিভিন্ন কৌশল নিতেই পারে। তবে আন্দোলনের নামে দলটি কোনো নাশকতার চেষ্টা করলে তা শক্ত হাতে দমন করা হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজের দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

একাদশ সংসদে এমপি নির্বাচিত হয়ে দ্বিতীয়বারের মতো স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পূর্ণমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়ে শপথ গ্রহণের পর মঙ্গলবার তিনি প্রথম দফতরে আসেন। দুই বিভাগের সচিবসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপির আন্দোলন নিয়মতান্ত্রিক হতে হবে। জনসম্পৃক্ত নয় এমন আন্দোলন থেকে দলটির নেতাদের বিরত থাকতে হবে। দেশের মানুষ নাশকতা ও অগ্নিসংযোগ পছন্দ করে না। অতীতেও এমন ব্যর্থ আন্দোলন করে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছে তারা।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল আরও বলেন, সরকারের দায়িত্ব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে চলমান উন্নয়নের ধারায় জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। তা না করতে পারলে এসব অর্জন হারিয়ে যাবে। যে কোনো মূল্যে সরকার জননিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব ধরনের পদক্ষেপ নেবে।

মাদকমুক্ত সমাজ গঠনের পরিকল্পনার সম্পর্কে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি থাকবে সরকারের। প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে কড়া সতর্কবার্তা দিয়েছেন। যেকোনো মূল্যে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সমাজ থেকে মাদক দূর করা হবে। না হলে দেশের তরুণ সমাজের মেধা ও স্বপ্ন হারিয়ে যাবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল জঙ্গিবাদ দমন প্রসঙ্গে বলেন, বর্তমান সরকারের অন্যতম চ্যালেঞ্জ জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমন করা। আগেও জঙ্গি তৎপরতা সরকারের নিয়ন্ত্রণে ছিল। এ পর্বেও সরকার জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতির প্রয়োগ অব্যাহত রাখবে। সন্ত্রাস প্রতিরোধেও আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি কাজ হবে।

 সচিবালয়ে মঙ্গলবার নিজ দফতরে এলে কর্মকর্তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে ফুলের তোড়া  দিয়ে স্বাগত জানান- সমকাল 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইতিপূর্বে তিনি এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থেকে বেশ কিছু চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে সফল হয়েছেন। কিছু কাজ চলমান রয়েছে। যেসব কাজ অসমাপ্ত রয়েছে, সেগুলো বাস্তবায়ন করাই হবে তার অন্যতম লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী কামাল বলেন, এর আগেও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি টিম হিসেবে কাজ করেছে। এতে সাফল্য এসেছে। এর ধারাবাহিকতা রাখা হবে। প্রধানমন্ত্রীর ইশতেহার বাস্তবায়নে ও শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় মন্ত্রণালয় কাজ করে যাবে।

মন্তব্য


অন্যান্য