বরিশাল

ইন্দুরকানীতে অপহরণের দুইদিন পর স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

প্রকাশ : ০৩ জুন ২০১৯

ইন্দুরকানীতে অপহরণের দুইদিন পর স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

  ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে অপহরণের দুইদিন পর স্কুলছাত্র সালাউদ্দিনের (১৩) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে উপজেলার উমেদপুর এলাকার একটি ডোবা থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। 

এ ঘটনায় অপহরণের সঙ্গে জড়িত মূল অপহরণকারী সোহানসহ আটজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

সালাউদ্দিন পাড়েরহাট বন্দরের বাসিন্দা ফল ব্যবসায়ী সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে ও পাড়েরহাট রাজলক্ষ্মী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

জানা গেছে, শনিবার রাতে উপজেলার পাড়েরহাট বাজার থেকে সালাউদ্দিনকে একই এলাকার সোহানের নেতৃত্বে সাতজন মিলে অপহরণ করে। এবং অপহরণকারীরা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সালাউদ্দিনের বাবার কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। পুলিশকে জানালে রোববার রাতে উপজেলার টেংড়াখালী এলাকার আলীর খালের কাছে টাকা নিয়ে ডিবি পুলিশের একটি দল ওঁৎ পেতে থাকে। এসময় মুক্তিপণের টাকা নিতে আসা অপহরণকারীর এক সদস্য উপজেলার টেংড়খালী গ্রামের আ. রবের ছেলে মারুফকে (৩০) আটক করে পুলিশ। 

তার দেওয়া তথ্যমতে ডিবি পুলিশ ও ইন্দুরকানী থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে অপহরণকারীর মূল হোতা পিরোজপুর এলাকার সবুজ হাওলাদারের ছেলে সোহান হাওলাদার, হাফিজুর রহমান, বেল্লাল হোসেন, নাঈম হোসেনসহ সাতজনকে আটক করে। পরে তাদের দেওয়া তথ্যমতে উপজেলার পাড়েরহাট ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে সোমবার দুপুরে স্কুলছাত্রের লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুরের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মো. মোল্লা আজাদ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল আহমেদ মাঈনুল হোসাইন প্রমুখ। 

পিরোজপুর ডিবির ওসি মো. মিজানুল হক জানান, স্কুলছাত্র অপহরণের পর থেকে ব্যাপক অভিযান চালানো হয়। দুইদিন পর উমেদপুর এলাকার একটি ডোবা থেকে স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আটজনকে আটক করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য


অন্যান্য