বরিশাল

উজিরপুরে চেয়ারম্যান নান্টু হত্যায় ঢাকা থেকে গ্রেফতার ৮

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৮ | আপডেট : ০৭ নভেম্বর ২০১৮

উজিরপুরে চেয়ারম্যান নান্টু হত্যায় ঢাকা থেকে গ্রেফতার ৮

  বরিশাল ব্যুরো

বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় জল্লা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি বিশ্বজিৎ হালদার নান্টু হত্যা মামলায় ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার হলেন আরও আটজন। পুলিশের দাবি, এরাই এ হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী। এ নিয়ে গ্রেফতারকৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২০ জন। তবে কিলিং মিশনে অংশ নেওয়া দু'জনকে এখনও গ্রেফতার করা যায়নি।

বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম বুধবার সংবাদ সম্মেলনে জানান, গত মঙ্গলবার রাতে ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকায় একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের অফিস থেকে এই আটজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে একটি পিস্তল উদ্ধার করা হয়। এটি দিয়েই বিশ্বজিৎকে গুলি করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো এজাহারভুক্ত আসামি শাকিল ইসলাম রাব্বী (২৫), মামুন শাহ (৩৫), কাউসার সেরনিয়াবাত ও এরশাদ এবং এজাহারবহির্ভূত কুদ্দুস হাওলাদার, হাদিরুল ইসলাম হাদী, দিপু ও সোহাগ। তবে পুলিশ তাদের ঠিকানা প্রকাশ করেনি। গ্রেফতারের সময় তারা আসামি মামুন শাহর অফিসে ছিল।

পুলিশ সুপার বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে তারা চেয়ারম্যান নান্টু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। স্থানীয় আধিপত্য বিস্তার এবং মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় চেয়ারম্যান নান্টুকে ভাড়াটে খুনি দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। 

তিনি জানান, দুই বন্ধু রাব্বী ও মামুন শাহ জল্লা এলাকায় তাদের রাজনৈতিক অবস্থান সুদৃঢ় করার ক্ষেত্রে পথের কাঁটা মনে করত চেয়ারম্যান নান্টুকে। মামলার তদন্তের স্বার্থের কথা বলে এর চেয়ে বেশি তথ্য জানাননি তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ২১ সেপ্টেম্বর রাত ৯টার দিকে জল্লা ইউনিয়নের কারফা বাজারে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসীর গুলিতে নিহত হন চেয়ারম্যান নান্টু। এ ঘটনায় নান্টুর বাবা ৩২ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

মন্তব্য


অন্যান্য