বাংলাদেশ

যমজ সন্তানের বাবা হলেন রেলমন্ত্রী

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৮

যমজ সন্তানের বাবা হলেন রেলমন্ত্রী

ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

আবারও বাবা হয়েছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক। সোমবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানী ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে যমজ ছেলের জন্ম দেন তার স্ত্রী হনুফা আক্তার।

রেলমন্ত্রী জানান, মা ও দুই নবজাতক সুস্থ আছে। সদ্যজাত দুই ছেলের নাম এখনো ঠিক করা হয়নি। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে নাম ঠিক করা হবে।
যমজ সন্তানের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন মুজিবুল হক।


২০১৪ সালের দীর্ঘ কুমারজীবনের ইতি টানেন রেলমন্ত্রী। ৬৭ বছর বয়সে ওই বছরের ৩১ অক্টোবর হনুফা আক্তারকে বিয়ে করেন মুজিবুল হক। এরপর ২০১৬ সালের মে মাসে তাদের মেয়ে জন্মগ্রহণ করে।


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

খালেদা জিয়ার সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ


আরও খবর

বাংলাদেশ

ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। শুক্রবার বিকেল পৌনে ৫টার দিকে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে দেখা করতে যান তারা। প্রায় এক ঘণ্টা পর তারা কারাগার থেকে বের হয়ে আসেন।

কারাগারে দেখা করতে যাওয়া ছয় স্বজনদের মধ্যে ছিলেন- খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার, ভাবি কানিজ ফাতেমা, ভাতিজা অভিক ইস্কান্দার, অনিক ইস্কান্দার, বোন সেলিমা ইসলাম এবং ভাগ্নে ডা. মামুন আহমেদ।

এর আগে বুধবার খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যান তার দুই আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার এবং সানাউল্লাহ মিয়া।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। রায় ঘোষণার পরপরই তাকে কারাগারে নেওয়া হয়।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

নির্বাচনের আগে সিনহা অপপ্রচারে উসকানি না দিলেও পারতেন: কাদের


আরও খবর

বাংলাদেশ

ফাইল ছবি

  গাজীপুর প্রতিনিধি

সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা নির্বাচনের আগে বই প্রকাশ করে সরকারবিরোধী অপপ্রচারে উসকানি না দিলেও পারতেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক, পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার সকালে গাজীপুর মহানগরের ভোগড়া বাইপাস মোড় এলাকায় বাস র‌্যাপিড ট্রানজিটসহ (বিআরটি) কয়েকটি প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনের সময় এ কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, তার (সুরেন্দ্র কুমার সিনহা) লেখা বই তিনি প্রকাশ করবেন- এটাই স্বাভাবিক। তবে আমার প্রশ্ন একটাই, তা বিদেশের মাটিতে বসে কেন? আর নির্বাচনকে সামনে রেখে কেন? বইটি আরও দুই-তিন মাস পরেও প্রকাশ করা যেত। বইটি এ সময়ে প্রকাশ করে সরকারবিরোধী অপপ্রচারের উসকানি না দিলেও পারতেন তিনি।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ডিজিটাল ক্রাইমকে মোকাবিলা করতেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। এতে স্বাধীন সাংবাদিকতা এবং মতপ্রকাশের স্বাধীনতা বাধাগ্রস্ত হবে না, ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। সেভাবেই আইনটি প্রয়োগ করা হবে।

যুক্তফ্রন্টকে স্বাগত জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিভিন্ন দল ও নেতাদের ঐক্য প্রক্রিয়া, যুক্তফ্রন্টকে সরকার স্বাগত জানায়। তারা সভা–সমাবেশেরও অনুমতি পাচ্ছে। ইতোমধ্যে এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ, পুলিশ কমিশনারকে। যারাই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সভা করতে চান তাদের অনুমতি দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। এখন যে কানো নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে পারবে।

এ সময় গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার মো. আরিফুল ইসলাম, বিআরটির প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মো. সানাউল হক, সড়ক ও জনপথের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (ঢাকা জোন) আবদুস সবুর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

নদী বিষয়ক বইমেলা উদ্বোধন


আরও খবর

বাংলাদেশ
নদী বিষয়ক বইমেলা উদ্বোধন

প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

  অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে শুক্রবার রাজধানীর শাহবাগে তিন দিনব্যাপী নদী বিষয়ক বইমেলা ও প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। পাঠক সমাবেশ কেন্দ্রে আয়োজিত এই মেলার উদ্বোধন করেন অ্যাকশনএইডের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ্ কবির।

মেলার উদ্বোধন করে ফারাহ্ কবির বলেন, নদী বিষয়ক প্রকাশনার পরিধি আরও বাড়ানো দরকার। আমাদের দেশে নদী বিষয়ক যেসব প্রকাশনা রয়েছে, তার বেশিরভাগই হয় পাঠ্যক্রমমূলক না হয় সাহিত্যমূলক। এই দুইয়ের মাঝখানে বিপুল পাঠক রয়েছেন যারা নদী নিয়ে সহজভাষায় তথ্য ও অভিজ্ঞতামূলক বই পড়তে চায়। প্রকাশকদের এগিয়ে আসতে হবে এ ধরনের বই প্রকাশে। 

তিনি বলেন, প্রযুক্তির এই যুগে শিশুদের জন্য ‘ইন্টারেকটিভ’ বই প্রকাশ করতে হবে। তাহলে তারা বই পড়তে আগ্রহী হবে ও নদী সম্পর্কে জানবে। তাদের মধ্য থেকে ভবিষ্যৎ নদীকর্মী তৈরি হবে।

শ্রাবণ প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী রবীন আহসান বলেন, দেশে নদী বিষয়ে মানসম্মত বইয়ের চাহিদা রয়েছে, প্রকাশকদেরও আগ্রহ রয়েছে। কিন্তু নদী বিষয়ক বইয়ের লেখকের অভাব রয়েছে। শ্রাবণ প্রকাশনী থেকে নদী বিষয়ে যেসব বই প্রকাশ করা হয়, তার কোনটিই অবিক্রিত থাকে না। নদী বিশেষজ্ঞরা সহজ ভাষায় সাধারণ পাঠকের উপযোগী বই লিখলে, বাজারে তা ব্যাপক চলবে।  

রিভারাইন পিপলের মহাসচিব শেখ রোকন বলেন, রিভারাইন পিপল নদী বিষয়ে যে জ্ঞানভিত্তিক আন্দোলন গড়ে তুলতে চায়, তারই অংশ হিসেবে যৌথভাবে তৃতীয়বারের মতো নদী বিষয়ক বইমেলা আয়োজন করেছে। প্রজন্মান্তরের মধ্যে নদী বিষয়ক জ্ঞান বিনিময় করতে প্রকাশনা খুবই কার্যকর মাধ্যম। বাংলাদেশের নদ-নদী যে বহুমাত্রিক সংকটের মধ্যে রয়েছে, তা মোকাবেলায়ও গড়ে তুলতে হবে বহুমাত্রিক আন্দোলন। 

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রিভারাইন পিপলের পরিচালক নূসরাত খান। মেলা ও প্রদর্শনীতে বাজারে সুলভ বই বিক্রয় ছাড়াও দুষ্পাপ্য নদী বিষয়ক গ্রন্থাবলী প্রদর্শিত হচ্ছে। আগামী রোববার পর্যন্ত সকাল থেকে সন্ধ্যাবেলা এই মেলা চলবে বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিআইডব্লিউটিএ’র সাবেক প্রকৌশলী তোফায়েল আহমেদ, বুড়িগঙ্গা বাঁচাও আন্দোলনের সদস্য সচিব মিহির বিশ্বাস, হাওর অঞ্চলবাসীর সমন্বয়ক জাকিয়া শিশির, নোঙর’র চেয়ারম্যান সুমন শামস, রিভারাইন পিপলের পরিচালক মোহাম্মদ এজাজ, শরিফুল ইসলাম, নদীযাত্রীকের আহ্বায়ক ফারুখ আহমেদ প্রমুখ।

প্রকাশনা সংস্থা শ্রাবণ প্রকাশনী, নদী বিষয়ক উদ্যোগ রিভারাইন পিপল ও বইনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম যৌথভাবে এই মেলার আয়োজন করেছে।