অন্যান্য

৪০ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টকে পতাকা প্রদান অনুষ্ঠানে সেনাপ্রধান

যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকতে হবে

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৮

যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকতে হবে

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ— আইএসপিআর

  সমকাল প্রতিবেদক

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামস্থ সেনাবাহিনীর ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টাল সেন্টারে মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজের মাধ্যমে ৪০ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টকে (মেকানাইজড) জাতীয় পতাকা দিয়েছেন। সেনাবাহিনী প্রধান প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছলে তাকে স্বাগত জানান আর্মি ট্রেনিং অ্যান্ড ডকট্রিন কমান্ডের (আর্টডক) জিওসি লে. জেনারেল মো. নাজিম উদ্দীন, ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল এস এম মতিউর রহমান ও ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টাল সেন্টারের কমান্ড্যান্ট ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. হাবিবুল করিম।

অনুষ্ঠানে সেনাপ্রধান বলেন, 'কর্মদক্ষতা, কঠোর পরিশ্রম এবং কর্তব্য নিষ্ঠার স্বীকৃতি হিসেবে যে পতাকা আপনারা পেলেন, আশা করি তার মর্যাদা রক্ষার জন্য যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে সব সময় প্রস্তুত থাকবেন। জাতির আস্থা অটুট রাখার জন্য সর্বদা সচেষ্ট থাকতে হবে।'

সেনাবাহিনীর ঐতিহ্য অনুযায়ী বিভিন্ন ইউনিটের কর্মদক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সেনাবাহিনী তথা জাতীয় উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অবদান এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে যুদ্ধ ও শান্তিকালীন বীরত্বপূর্ণ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ আনুষ্ঠানিকভাবে এ জাতীয় পতাকা দেওয়া হয়। ১৯৮২ সালের ৩০ এপ্রিল প্রতিষ্ঠিত ৪০ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট তথা 'চিরঞ্জীব চল্লিশ' দীর্ঘ ৩৬ বছরের নিরবচ্ছিন্ন সেবা এবং অবদানের স্বীকৃতিরূপে এ সম্মানে ভূষিত হয়।

গ্র্যাজুয়েটদের মধ্যে সনদপত্র বিতরণ: অফিসার্স গানারি স্টাফ কোর্স (এয়ার ডিফেন্স)-৯-এর গ্র্যাজুয়েশন সিরিমনি বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের আর্টিলারি সেন্টার ও স্কুলে অনুষ্ঠিত হয়। সেনাপ্রধান প্রধান অতিথি থেকে গ্র্যাজুয়েট অফিসারদের মধ্যে 'জি+সার্টিফিকেট' তুলে দেন। অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ প্রশিক্ষণার্থী পুরস্কার, শ্রেষ্ঠ রিসার্চ পেপার পুরস্কার এবং শ্রেষ্ঠ টেকনিক্যাল প্রজেক্ট পুরস্কার দেওয়া হয়। এ কোর্সে পাঁচজন বিদেশি কর্মকর্তাসহ ১৭ জন অংশ নেন।

সংশ্লিষ্ট খবর


মন্তব্য যোগ করুণ

পরের
খবর

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিখোঁজের খবর গুজব


আরও খবর

অন্যান্য

  সমকাল প্রতিবেদক

'বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নিখোঁজ' শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি একটি গুজব।

বুধবার এক সরকারি তথ্য বিবরণীতে এ তথ্য জানানো হয়।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের ‘গুজব প্রতিরোধ ও অবহিতকরণ সেল’ খবরটিকে ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত গুজব’ জানিয়ে এতে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সবাইকে অনুরোধ করেছে।

তথ্য বিবরণীতে বলা হয়, 'বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নিখোঁজ' শিরোনামে সোশ্যাল মিডিয়া ও কয়েকটি অনলাইন পোর্টালে প্রচারিত সংবাদটি একটি গুজব।

এতে বলা হয়, ফ্রান্সের থ্যালাস এলেনিয়া স্পেস কোম্পানি স্যাটেলাইটটি নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব বাংলাদেশকে বুঝিয়ে দিয়েছে। এই স্যাটেলাইটের ফ্রিকোয়েন্সি ব্যবহার করে বাংলাদেশ টেলিভিশন প্রতিদিন সফলভাবে অনুষ্ঠান প্রচার করছে

তথ্য বিবরণীতে আরও বলা হয়, অতএব, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নিখোঁজ শিরোনামে প্রচারিত সংবাদটি একটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত গুজব।


পরের
খবর

সশস্ত্র বাহিনী দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা


আরও খবর

অন্যান্য

ফাইল ছবি

  সমকাল প্রতিবেদক

সশস্ত্র বাহিনী দিবসে ঢাকা সেনানিবাসের শিখা অনির্বাণে ফুল দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে শহীদ সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বুধবার সকালে রাষ্ট্রপতি শিখা অনির্বাণে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। রাষ্ট্রপতির পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিখা অনির্বাণে ফুল দিয়ে শহীদ সেনাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। 

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পর সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ এবং বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত নিজ নিজ বাহিনীর পক্ষ থেকে শিখা অনির্বাণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

দিবসটি উপলক্ষে আজ তিন বাহিনী প্রধানরা বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি এবং সশস্ত্র বাহিনী বিভাগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। 

সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সমন্বয়ে ১৯৭১ সালের ২১ নভেম্বর মুক্তিযুদ্ধের সময় গঠিত হয়েছিল বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে '৭১-এর এই দিনেই আত্মোৎসর্গের ব্রত নিয়ে দেশমাতৃকাকে শত্রুমুক্ত করতে সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর অকুতোভয় বীর সেনানীরা মুক্তিকামী আপামর জনতার সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে সম্মিলিতভাবে অপ্রতিরোধ্য আক্রমণের সূচনা করেছিলেন। এর পর থেকে প্রতি বছর ২১ নভেম্বর সশস্ত্র বাহিনী দিবস হিসেবে উদযাপিত হয়ে আসছে। 

সংশ্লিষ্ট খবর

পরের
খবর

কারওয়ান বাজারে কাঁচাবাজারের আড়তে অগ্নিকাণ্ড


আরও খবর

অন্যান্য

  সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে কাঁচাবাজারের আড়তে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে আগুন লাগে। 

ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার কামরুল হাসান বলেন, ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিটের চেষ্টায় প্রায় দুই ঘণ্টা পর আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসে।

আগুনে দুটি দোকান পুড়ে গেছে। তবে ক্ষয়ক্ষতির আর্থিক পরিমাণ তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস। এছাড়া আগুন লাগার কারণ এখনও জানা যায়নি।