এশিয়া

জ্যান্ত পুঁতে ফেলা হলো পশুটিকে!

প্রকাশ : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

জ্যান্ত পুঁতে ফেলা হলো পশুটিকে!

ভিডিও থেকে নেওয়া ছবি

  অনলাইন ডেস্ক

পশুপাখিদের ওপর নিষ্ঠুরতার অনেক বীভৎস দৃশ্য ধরা পড়েছে এর আগেও। কিন্তু ভারতের বিহারের যে ঘটনা সামনে এসেছে তা যেন সব বীভৎসতাকে হার মানিয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, গুলিতে আহত একটি নীলগাইকে জ্যান্ত মাটিচাপা দিয়েছে বিহারের বৈশালী জেলা কর্তৃপক্ষ। সেই ঘটনার একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। 

আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিহারের বৈশালী জেলার কৃষকরা অভিযোগ করছিলেন, নীলগাই তাদের সব ফসল খেয়ে ফেলছে। তাদের অভিযোগ পেয়ে বৈশালী জেলার বনবিভাগ পেশাদার শুটার ভাড়া করে। তাদের দায়িত্ব ছিল নীলগাইদের গুলি করে মারা। গত ৪ দিনে শুটাররা প্রায় ৩০০ নীলগাইকে গুলি করে মেরেছেনও।

হতভাগ্য সেই সব নীলগাইদের মধ্যে একটির ভাগ্য মনে হয় সব থেকে খারাপ ছিল। যেখানে গুলি খেয়েও প্রাণ না হারানো নীলগাইটিকে নৃশংসভাবে গর্তে ফেলে মাটিচাপা দেওয়া হয়। আদিত্য জোশী নামে এক ব্যক্তি সেই ঘটনার একটি ভিডিও টুইটার হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে, গর্তের ধারে বসে রয়েছে একটি নীলগাই। জেসিবি মেশিন দিয়ে ধাক্বা দিয়ে তাকে গর্তে ফেলে দেওয়া হয়। তারপর জ্যান্তই মাটিচাপা দিয়ে দেওয়া হয় পশুটিকে।

এক মিনিট ৩৫ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসতেই তীব্র নিন্দা শুরু হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, নীলগাই হত্যা অভিযান শুরু হয়েছে বৈশালীর বিধায়ক রাজকিশোর সিংহের উদ্যোগে। আর এই কাজে রাজ্য সরকার ও স্থানীয় প্রশাসনও যুক্ত রয়েছে।

তবে বিধায়ক রাজকিশোর সিংহ দাবি করছেন, এটি মিথ্যা অভিযোগ। যে ভিডিওটি আপলোড হয়েছে সেটি বানানো। 

পরে অবশ্য তিনি দাবি করেন, নীলগাইকে জীবন্ত মাটিচাপা দেওয়া অমানবিক। তিনি বিষয়টি সম্পর্কে কিছুই জানেন না। তিনি জেলাশাসককে অনুরোধ করেছিলেন, শুটার ডেকে নীলগাইকে গুলি করে তাদের সংখ্যা কমাতে। কিন্তু এভাবে জীবন্ত কোনও নীলগাইকে মাটিচাপা দেওয়ার ঘটনা ঘটলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য


অন্যান্য